Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

আনারস খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারীতা!

রসালো আনারস খেতে কার না ভাল লাগে। আনারস কেবল স্বাদেই নয় এটি খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্যও খুব কার্যকর। আনারস ক্ষুধা বাড়ানোর পাশাপাশি শরীরে শক্তি দেয়। উচ্চ জ্বর সেবন করা হলে এটি জ্বর হ্রাস করে। পেটের গ্যাস, ব্যথা, অ্যাসিডিটি এবং শারীর…




রসালো আনারস খেতে কার না ভাল লাগে। আনারস কেবল স্বাদেই নয় এটি খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্যও খুব কার্যকর। আনারস ক্ষুধা বাড়ানোর পাশাপাশি শরীরে শক্তি দেয়। উচ্চ জ্বর সেবন করা হলে এটি জ্বর হ্রাস করে। পেটের গ্যাস, ব্যথা, অ্যাসিডিটি এবং শারীরিক দুর্বলতা দূর করতে এই ফলটি বেশ কার্যকর। এটি প্রতিদিন খেলে অনেক রোগ এড়ানো যায়। আসুন জেনে নেওয়া যাক আনারস খেলে কী কী উপকার পাওয়া যায়।


আনারস রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়:


আনারস এমন একটি ফল যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করে। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি পাওয়া যায় যা স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী। আনারসে ভিটামিন সি এর পরিমাণ ৭৮.৯%। এটি খাওয়া শরীরের বিকাশ এবং চিকিৎসায় অনেক সহায়তা করে। এটি দেহে ক্ষত এবং আয়রনের ঘাটতিজনিত রোগগুলি দূর করতে সহায়তা করে। 


ওজন নিয়ন্ত্রণ করে:


আনারস ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সহায়ক। আনারসে ফ্রুক্টোজ সহ অনেক পুষ্টি থাকে যা দেহে শক্তি জোগায়। এটির এক স্লাইসে প্রায় ৪২ ক্যালোরি রয়েছে তবে এতে চার শতাংশ কার্বহাইড্রেট রয়েছে যা আপনাকে পরিপূর্ণ বোধ করে। এটি আপনাকে ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করতে পারে।


হজম শক্তিশালী করে:


ব্রোমেলাইন আনারসে পাওয়া যায় যা এনজাইমের মিশ্রণ। আনারস সেবন করে হজম শক্তি শক্তিশালী হয়। আনারসে পাওয়া ব্রোমেলিন ডায়রিয়ার মতো রোগ হ্রাসে সহায়তা করে।


হাড়কে শক্তিশালী করে:


আনারসে ম্যাঙ্গানিজ থাকার কারণে এটি হাড়কে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। এটি অস্টিওপরোসিসকে স্থিতিশীল করতে সহায়তা করতে পারে। আনারসে উপস্থিত ম্যাঙ্গানিজ হাড়ের মেরামত করতেও সহায়তা করে।



ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়ক:


আনারসে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট পাওয়া যায়। সমীক্ষা অনুসারে, এটি ক্যান্সারের মতো রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়তা করতে পারে।


অনেক রোগের চিকিৎসা করে:


আনারস খাওয়া শরীরে প্রদাহ, ধমনী রোগ, ডায়াবেটিস, ক্যান্সার এবং আলঝাইমার রোগের নিরাময়ে অনেকাংশে সহায়তা করে।


ত্বকের যত্ন:


ভিটামিন সি সমৃদ্ধ, এই ফলটি ত্বকের জন্যও খুব উপকারী। এটিতে এমন উপাদান রয়েছে যা মুখে আভা দেয় এবং মুখের দাগ দূর করে। এগুলি প্রদাহ হ্রাস করে এবং ক্ষত নিরাময়ে সহায়তা করে। 

No comments