Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

যে সভায় 'দুর্নীতি' নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ভাষণ দিচ্ছিলেন, সেই সভায়ই ঘুষ নিতে গিয়ে ধরা পড়লেন এসডিএম

রাজস্থানে দুর্নীতিবাজ অফিসারদের সাহস কতটা দৃঢ়, তা আজ দেখা গেছে। আসলে, যখন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে কালেক্টর সম্মেলনে বক্তৃতা দিচ্ছিলেন, একই সময়ে একই সভায় বসে থাকা এক এসড…



রাজস্থানে দুর্নীতিবাজ অফিসারদের সাহস কতটা দৃঢ়, তা আজ দেখা গেছে। আসলে, যখন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে কালেক্টর সম্মেলনে বক্তৃতা দিচ্ছিলেন, একই সময়ে একই সভায় বসে থাকা এক এসডিএম ফোনে ঘুষ নিচ্ছিলেন। রাজস্থানের অ্যান্টি কারপশন ব্যুরো রাজস্থানের দৌসা জেলার দুই এসডিএম এবং প্রাক্তন এসপির দালালকে ঘুষ নেওয়ার সময় গ্রেপ্তার করেছে।


বর্তমানে আইপিএস এবং দৌসার প্রাক্তন এসপি মনীষ আগরওয়ালের দুটি মোবাইল ফোনও অ্যান্টি কারপশন ব্যুরোর (এসিবি) দল জব্দ করেছে, এসপিও দুর্নীতি দমন ব্যুরো দলের তদারকিতে আসতে পারে। আসলে, বিষয়টি হল একটি জাতীয় রাজপথ রাজস্থানের দৌসা জেলা দিয়ে যাচ্ছে, যেখানে কৃষকদের জমি অধিগ্রহণের কাজ চলছে। দৌসা জেলার দুজন এসডিএম, একজন বান্দিকুইয়ের পিংকি মীনা এবং অন্যজন দৌসার পুষ্কর মিত্তালকে এই সংস্থার জন্য জমি অধিগ্রহণের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল, অধিগ্রহণের বিরোধের কারণে এই সংস্থাটি বিচারের অধীনে ছিল, যার শুনানি এসপি মনীশ অগ্রওয়াল করছিলেন।


যাইহোক, এই বিষয়টির শুনানি নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ আসতে শুরু করে, তারপরে দৌসা জেলা থেকে এসপিকে অপসারণ করা হলে, এর পরেও এসপির দালাল নীরজ অধিগ্রহণকারী সংস্থাকে ঘুষ দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিল। দালাল নীরজ, এসপি মনীষ আগরওয়ালের জন্য এই সংস্থার কাছ থেকে ৩০ লাখ টাকা চেয়েছিলেন। যাকে অ্যান্টি কারপশন ব্যুরোর দল গ্রেপ্তার করেছে।

No comments