Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

পুলিশের এনকাউন্টারে মৃত্যু হলো মধ্যপ্রদেশের রতলামে ট্রিপল হত্যার আসামির

বৃহস্পতিবার রাতে একটি এনকাউন্টারে মধ্যপ্রদেশের রতলামে ট্রিপল হত্যার আসামি দিলীপ দেওয়ালকে পুলিশ হত্যা করেছে। এই এনকাউন্টারে দুই উপ-পরিদর্শকসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।
অভিযুক্ত দিলীপের বিরুদ্ধে এক সপ্তাহ আগে রতলামের রাজীব নগরে…



বৃহস্পতিবার রাতে একটি এনকাউন্টারে মধ্যপ্রদেশের রতলামে ট্রিপল হত্যার আসামি দিলীপ দেওয়ালকে পুলিশ হত্যা করেছে। এই এনকাউন্টারে দুই উপ-পরিদর্শকসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।


অভিযুক্ত দিলীপের বিরুদ্ধে এক সপ্তাহ আগে রতলামের রাজীব নগরে ট্রিপল হত্যা মামলা চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছিল। গুজরাটের দহোদ জেলার খারেদী ডুঙ্গরি গ্রামের বাসিন্দা দিলীপ তার তিন সহকর্মীর সাথে লুটপাটের ঘটনাটি চালিয়েছিল।


দিলীপ লুটপাটের জন্য বাড়িতে প্রবেশ করত এবং বাড়ির সদস্যদের গুলি করে হত্যা করত। তার উদ্দেশ্য ছিল ডাকাতির পরে কোনও সাক্ষী রেখে যাওয়া। তিনি ২০১৭ সালে দহোদে হত্যার দুটি পৃথক মামলা, ২০০৯ সালে রতলামের একটি ধর্ষণ মামলা।


গুজরাট থেকে অনুপম শর্মা এবং হিমাংশু সোলঙ্কির নামে তিনি জাল আধার কার্ডও তৈরি করেছিলেন। দহোদের এক ব্যবসায়ী হত্যার দায়ে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। ২০১৯ সালে প্যারোলে কারাগার থেকে বেরিয়ে আসার পরে, রতলাম এসে ভাড়া বাড়ীতে থাকা শুরু করে।


দিলীপ পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিও ছোড়ে


পুলিশ খবর পেয়েছিল যে, অভিযুক্ত দিলীপ ফোরলেন সংলগ্ন খচরউড সড়কের কাছে কোথাও যাচ্ছিল। এসপি গৌরব তিওয়ারীর নির্দেশে পুলিশ দল অবরোধ করে এবং এই সময় পুলিশ বাহিনীর উপর দিলিপ গুলি চালায়। জবাবে পুলিশও গুলি চালায়। এ কারণে দিলিপ গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। আহত হয়েছেন দুই উপ-পরিদর্শক আইয়ুব খান ও অনুরাগ যাদব সহ আরও তিন পুলিশ সদস্য। আহতদের জেলা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।



মিড টাউন কলোনির ভাড়া বাড়িতে থাকাকালীন দিলীপ

এসপি তিওয়ারি জানান, দিলিপ মিড টাউন কলোনীতে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। পিছনটি ভাঙা বাউন্ডারি প্রাচীর দিয়ে এসেছিল যাতে এটি সিসিটিভি ক্যামেরার সামনে না আসতে পারে। তিনি খচরউড রোড থেকে হেঁটে কলোনী যাচ্ছিলেন। তারপরে পুলিশ তাকে বাড়িতে নিয়ে যায়। তারপর তিনি এখানে এনকাউন্টারে মারা যান।

No comments