Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

ইউটিউবের মাধ্যমে বলিউডে জায়গা বানিয়েছেন এই অভিনেত্রী

মিথিলা পালকরের (২৭) কোনও পরিচয়ের দরকার পরে না । কোনও গডফাদার এবং চলচ্চিত্রের ব্যাকগ্রাউন্ড ছাড়াই মিথিলা কেবল বলিউডে নয়, ডিজিটাল বিশ্বেও দুর্দান্ত জায়গা করে নিয়েছেন। মিথিলা যখন ২৩ বছর বয়সে তখন আন্না কেন্দ্রিক কাপ কাপের মারাঠি…



মিথিলা পালকরের (২৭) কোনও পরিচয়ের দরকার পরে না । কোনও গডফাদার এবং চলচ্চিত্রের ব্যাকগ্রাউন্ড ছাড়াই মিথিলা কেবল বলিউডে নয়, ডিজিটাল বিশ্বেও দুর্দান্ত জায়গা করে নিয়েছেন। মিথিলা যখন ২৩ বছর বয়সে তখন আন্না কেন্দ্রিক কাপ কাপের মারাঠি সংস্করণ গেয়ে অনেক শিরোনাম করেছিলেন। মিথিলার সেই ভিডিওটি ইউটিউবে ভাইরাল হয়েছিল।



তার ইউটিউব সাবস্ক্রাইবার এক দিনে ৫০০০ থেকে ৪৫,০০০ এ পৌঁছেছেন। এটি ২০১৬ সালের কথা যখন ভারতে ইউটিউবের ক্রেজ এতটা ছিল না। এর পরে মিথিলা ওয়েবসারিজ 'লিটল থিংস'-এ উপস্থিত হয়েছিলেন, যেখানে তিনি কাব্য কুলকার্নির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এর পরে, তিনি 'বিন্দাস অরিজিনালস' 'গার্ল ইন দ্য বিগ সিটিতে' হাজির হন।


মিথিলা, যিনি তাঁর গার্ল নেক্সট ডোর ইমেজের সাথে সম্পর্কিত, তিনি বলেছেন - আমি যে চরিত্রে অভিনয় করি তার প্রত্যেকটিতেই আমি অংশীদার, যখনই আমি কোনও ভূমিকার জন্য অডিশন দিই, চরিত্রটি সম্পর্কে জানার ফলে আমার মনে হয় যে, এটি আমার সন্ধান করছে।


ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে দর্শকদের মধ্যে নিজের জায়গা তৈরি করা মিথিলা ২০১৮ সালে 'কারওয়ান' চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন, যেখানে তাকে ইরফান খান ও দিলকার সালমানের মতো নামী অভিনেতাদের সাথে স্ক্রিন স্পেস শেয়ার করতে দেখা গেছে।



ক্যারিয়ার সম্পর্কে মিথিলা একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, দু'বছর আগে 'লিটল থিংস' ওয়েবসিরিজ নেটফ্লিক্সের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করলে তিনি খুব খুশি হন। মিথিলা বলেছিলেন, সেই প্ল্যাটফর্মে যেখানে 'স্যাক্রেড গেমস' এবং 'নারকোসে'-র মতো উপাধি রয়েছে, সেখানে তার উপস্থিতি দেখে ভাল লেগেছে। 'লিটল থিংস' সম্পর্কে সেরা জিনিসটি বিশ্বের যে কোনও ব্যক্তি এর সাথে সম্পর্কিত হতে পারে।



মিথিলার পরের ছবি অজয় ​​দেবগন প্রযোজনা করছেন নেটফ্লিক্স 'ত্রিভাঙ্গা' প্রযোজনায়, এতে কাজলকেও দেখা যাবে। তার সাথে স্ক্রিন স্পেস শেয়ার করার বিষয়ে মিথিলা বলেছিলেন, আমরা 'কুছ কুছ হোতা হ্যায়ের' মতো ছবি দেখে বড় হয়েছি। এটি তাঁর ডিজিটাল আত্মপ্রকাশ। আমি খুব খুশি।

No comments