Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

পুজো করার সময় এই সাবধানতাগুলো অবলম্বন করুন

আমরা প্রত্যেকেই বাড়িতে ঠাকুরের জায়গা বিশেষ ভাবে রাখি। ঘরের যে কোনও একটি স্থান ঠাকুরের জন্য নির্ধারিত করা থাকে। সেই স্থানটি হয় বাড়ির সব থেকে পবিত্র ও বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ স্থান। তবে আমরা অজান্তেই ঠাকুরঘরে বা পুজো করার সময় এমন কিছু…





আমরা প্রত্যেকেই বাড়িতে ঠাকুরের জায়গা বিশেষ ভাবে রাখি। ঘরের যে কোনও একটি স্থান ঠাকুরের জন্য নির্ধারিত করা থাকে। সেই স্থানটি হয় বাড়ির সব থেকে পবিত্র ও বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ স্থান। তবে আমরা অজান্তেই ঠাকুরঘরে বা পুজো করার সময় এমন কিছু ভুল কাজ করে থাকি যে, এর ফলে আমাদের ইষ্ট দেবতারা অসন্তুষ্ট হন। যার ফলে বাড়িতে নেমে আসে অশান্তি, অভাব অনটন এবং অমঙ্গলের ছায়া।


দেখে নেওয়া যাক কোন ভুলগুলি ঠাকুরঘরে বা পুজো করার সময় করতে নেই—


• আমরা অনেক সময় ঠাকুরের প্রসাদ বেশি করে এনে রাখি। কিন্তু মনে রাখবেন প্রসাদ যেটুকু প্রয়োজন সেটুকুই আনুন। তবে যদি একান্তই বেশি আনা হয় তা হলে তা ঠাকুরঘরে না রেখে অন্যত্র কোথাও রাখতে হবে। দীর্ঘ দিন তা ঠাকুরঘরে রাখতে নেই।


• ঠাকুর কোনও সময় যেন সিংহাসন ছাড়া না রাখা হয়। কাঠের বা যে কোনও ধাতুর সিংহাসনেই ঠাকুর রাখতে হবে।


• পুজোর সময় আমরা যে আসন ব্যবহার করে থাকি, তা যেন প্রত্যেকের আলাদা আলদা হয়। একই আসন সবাই মিলে ব্যবহার করতে নেই।


• পুজোর সময় খুব বেশি উগ্র গন্ধযুক্ত ধূপ ব্যবহার করতে নেই।


• পুজোর সময় আমরা যে ফুল ঠাকুরকে অর্পণ করি, তা প্রতিদিন পরিষ্কার করে ফেলতে হয়। কোনও রকম পচা ফুল যেন ঠাকুরের কাছে না থাকে।


• ঠাকুরঘর এমন জায়গায় তৈরি করতে হবে যাতে সূর্যের আলো সেখানে প্রবেশ করে।


• পুজোর সময় যে প্রদীপ আমরা জ্বালাই, তা যেন কোনও ভাবে পুজো শেষ হওয়ার আগে নিভে না যায়। এটি অত্যন্ত অমঙ্গলজনক বলে মানা হয়।


• ঠাকুরঘরে খুব বড় মূর্তি স্থাপন না করাই ভাল। বাড়ির জন্য নয় ইঞ্চি মাপের ঠাকুর অত্যন্ত মঙ্গলজনক।


• পুরনো ক্যালেন্ডার বা মৃত মানুষের ছবি ঠাকুরঘরে রাখতে নেই।

No comments