Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

আয়ুর্বেদ মতে দুধ পান করার সঠিক নিয়ম

দুধকে একটি সম্পূর্ণ ডায়েট হিসাবে বিবেচনা করা হয়, তাই এটি আপনার ডায়েটের একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ।  আয়ুর্বেদের মতে গরুর দুধই সবচেয়ে পুষ্টিকর। দুধ আপনার ক্ষুধা প্রশমিত করতে এবং স্থূলত্ব থেকে মুক্তি পেতে খুব সহায়ক। তবে অনেকের…








দুধকে একটি সম্পূর্ণ ডায়েট হিসাবে বিবেচনা করা হয়, তাই এটি আপনার ডায়েটের একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ।  আয়ুর্বেদের মতে গরুর দুধই সবচেয়ে পুষ্টিকর। দুধ আপনার ক্ষুধা প্রশমিত করতে এবং স্থূলত্ব থেকে মুক্তি পেতে খুব সহায়ক। তবে অনেকের সহজে দুধ হজম হয় না। তারা পেট ফাঁপা হওয়ার কারণে বা পেট খারাপ হওয়ার অভিযোগ করে । আজকের সময়ে, দুধের গুণমান হ্রাস পেয়েছে এবং যদি আপনার হজম ব্যবস্থা শক্তিশালী না হয় তবে এটি হজম করতে আপনার অসুবিধা হয়, তবে আজ আসুন আমরা আপনাকে আয়ুর্বেদ অনুসারে দুধ পান করার কিছু নিয়ম এবং উপকারিতা সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি।



চিনি ছাড়া দুধ পান করুন


সাধারণত অনেকেরই দুধে চিনি মিশিয়ে এটি পান করার অভ্যাস থাকে। আয়ুর্বেদের মতে আপনি যদি রাতে চিনি ছাড়া দুধ পান করেন তবে তা আপনার পক্ষে বেশি উপকারী। এছাড়াও, সম্ভব হলে দুধে এক বা দুই চামচ  ঘি দিন। আয়ুর্বেদ দেশী গরুর দুধ সেবনে বেশি জোর দেয়। আয়ুর্বেদের মতে, দেশি গরুর দুধ আরও গুণাবলীতে সমৃদ্ধ। যদিও শহরগুলিতে এই দুধ পাওয়া খুব কঠিন, তবে সম্ভব হলে এই দুধটি পান করুন।



টাটকা এবং জৈব দুধ পান করুন


আজকের সময়ের জীবনযাত্রার কথা বিবেচনা করে আপনাকে প্যাকেট সহ সমস্ত কিছু ব্যবহার করতে হবে। বেশিরভাগ লোকেরা কেবল প্যাকেট সহ দুধ কেনেন। এই দুধ টাটকা বা জৈব নয়। আয়ুর্বেদের মতে, টাটকা, জৈব এবং হরমোনবিহীন দুধ আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল। এ ছাড়া কিছু লোক কাঁচা দুধ পান করতে পছন্দ করেন যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক। আয়ুর্বেদের মতে গরম অবস্থায় দুধ সিদ্ধ করে পান করা উচিৎ।



দুধ লবঙ্গ এবং এলাচ সহ পান করুন


আপনার যদি দুধ হজমে অসুবিধা হয় তবে আপনি এর সাথে কিছুটা মিশ্রিত জল পান করতে পারেন। এটি দুধকে সহজে হজম করে তোলে। এগুলি ছাড়াও আপনার এক চিমটি দুধ আদা, লবঙ্গ, এলাচ, জাফরান, দারচিনি এবং জায়ফল ইত্যাদির সাথে মিশিয়ে খাওয়া উচিৎ, এটি আপনার পেটে উত্তাপ বাড়ায় যা দুধকে সহজে হজম করতে সহায়তা করে।



ভাল ঘুম পেতে সহায়ক


কখনও কখনও এমন হয় যে আপনি কোনও কারণে রাতের খাবার খেতে অক্ষম। আয়ুর্বেদের মতে, এ জাতীয় পরিস্থিতিতে এক চিমটি জায়ফল এবং জাফরান মিশিয়ে দুধ খান। এটি আপনাকে একটি ভাল ঘুম পেতে পাশাপাশি আপনার শরীরে শক্তি সরবরাহ করতে সহায়তা করে।



কোনও নোনতা পনির বা মাছের সাথে দুধ পান করবেন না


আয়ুর্বেদ অনুসারে কোনও লবণযুক্ত পনির দিয়ে দুধ খাওয়া উচিৎ নয়। এছাড়াও ক্রিম, স্যুপ বা পনির নুন দিয়ে খাবেন না। দুধের সাথে সাইট্রাস ফলের ব্যবহার নিষিদ্ধ কারণ দুধ এই জিনিসগুলির সাথে মিলিত হয় এবং প্রতিক্রিয়া দেখায়। এ ছাড়া আয়ুর্বেদের মতে দুধ ও মাছ একসাথে খেলে আপনার ত্বক নষ্ট হয়ে যায়, আপনার ত্বকে সাদা বা বাদামী দাগ পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

No comments