নিত্য এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকলে পেতে পারেন একাধিক স্বাস্থ্যসুবিধা! পড়ুন - Vice Daily

Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

নিত্য এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকলে পেতে পারেন একাধিক স্বাস্থ্যসুবিধা! পড়ুন

আপনারা জানেন, সুস্থ ও সুন্দর জীবনের জন্য প্রয়োজন নিয়মিত শরীরচর্চা। আমাদের অনেকেই নিয়মিত শরীরচর্চা করি। আবার কেউ কেউ করি অনিয়মিতভাবে এবং কেউ কেউ একেবারেই করি না। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, শারীরিক ও মানসিক সুস্থতার জন্য নিয়মিত এবং সঠি…








আপনারা জানেন, সুস্থ ও সুন্দর জীবনের জন্য প্রয়োজন নিয়মিত শরীরচর্চা। আমাদের অনেকেই নিয়মিত শরীরচর্চা করি। আবার কেউ কেউ করি অনিয়মিতভাবে এবং কেউ কেউ একেবারেই করি না। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, শারীরিক ও মানসিক সুস্থতার জন্য নিয়মিত এবং সঠিক পদ্ধতিতে শরীরচর্চা করা জরুরি।


আজকের এক ধরনের একটি শরীরচর্চা 'এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকা' নিয়ে আলোচনা করব। বুঝিয়ে বলছি। সোজা হয়ে দাঁড়ান। তারপর ধীরে ধীরে একটি পা হাঁটু ভাজ করে উপরে তুলুন। এভাবে দাঁড়িয়ে থাকুন এক মিনিট। তারপর পা পরিবর্তন করে আবার একই কাজ করুন। হ্যা, এটাই সেই বিশেষ ব্যায়াম, যার কথা আমরা বলছি। নিয়মিত এ ব্যায়াম করলে আপনি শারীরিক ও মানসিকভাবে যথেষ্ট উপকার পাবেন। কিন্তু সত্যি বলছি, এভাবে দাঁড়িয়ে থাকা সহজ কাজ নয়। এক্ষেত্রে ভারসাম্য রক্ষা করা কঠিন।

তবে ব্যায়াম হিসেবে এটা কিন্তু অনেকক্ষণ ধরে করতে হয় না। একবারে মাত্র এক মিনিট এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকতে বলেন চিকিৎসকরা। অথচ দেখুন এর কতো উপকারিতা! আপনি যদি নিয়মিত এ ব্যায়াম করেন, বয়সকালে আপনার Alzheimer's রোগে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা কমে যাবে অনেকটা। এ ছাড়া, উচ্চ রক্তচাপ, রক্তে উচ্চ মাত্রার শর্করা এবং ঘাড় ও মেরুদণ্ডের রোগ থেকেও এ ব্যায়াম আপনাকে মুক্ত থাকতে সাহায্য করবে। এখানে আরেকটি কথা বলতে চাই। এ বিশেষ ধরনের ব্যায়াম করার সময় চোখ বন্ধ থাকা আবশ্যক।











অনেক চিকিৎসকরা মনে করেন, সবধরনের অসুখের কারণ হচ্ছে শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের মধ্যে কোনো-না-কোনো মাত্রার ভারসাম্যহীতা। এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকার এ ব্যায়াম শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। আর চোখ বন্ধ রাখতে বলা হচ্ছে একটি বিশেষ কারণে। আপনি যখন চোখ বন্ধ করেন, তখন আপনার ব্রেনের নার্ভগুলো তুলনামূলকভাবে অধিক সচল হয়। আর আমরা সবাই জানি, ব্রেন শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গকে নিয়ন্ত্রণ করে।

আরও একটু নির্দিষ্টভাবে বলি। আমাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেশকয়েকটি পয়েন্ট আছে, যেগুলোকে 'আকুপয়েন্ট' বলে। এই পয়েন্টগুলোতে চাপ দিয়ে ধীরে ধীরে মাসাজ করে যে চিকিৎসা  করা হয়, তাকে বলে 'আকুপ্রেসার'। এই আকুপ্রেসারের মাধ্যমে অনেক রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তো, এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকার ব্যায়ামটি আমাদের পায়ের অন্তত ছয়টি আকুপয়েন্টে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে বলে জানাচ্ছেন চিকিত্সকরা।

আরেকটি কথা, যারা হাত ও পায়ে শরীরের অন্যান্য স্থানের তুলনায় বেশি ঠাণ্ডা অনুভব করেন, তারা এ ব্যায়াম করে দেখতে পারেন; উপকার পাবেন।
এই বিশেষ ব্যায়ামটি আমাদের ঘুমের গুণগত মান বাড়াতে পারে; বাড়াতে পারে স্মরণশক্তি। তা ছাড়া, এ ব্যায়াম আমাদের শরীরের রোগ-প্রতিরোধক ক্ষমতাও বাড়ায় বলে চিকিৎসকরা দাবী করেন।

অবশ্য যাদের বয়স বেশি এবং দু'পায়েই দাঁড়িয়ে থাকতে যাদের কষ্ট হয়, এ ব্যায়াম তাদের জন্য নয়।

No comments