যৌনমিলনকালে এসব করা থেকে সাবধান! - Vice Daily

Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

যৌনমিলনকালে এসব করা থেকে সাবধান!

অডেনের বিখ্যাত কবিতার লাইন দিয়ে শুরু হোক নারী পুরুষের মিলনের প্রতিপাদ্য।
প্রেম তোমার ঘুমন্ত মাথা রাখো আমার অবিশ্বস্ত বাহুতে। সময় উৎকণ্ঠা জ্বলে পুড়ে হয়ে যাক খাক বাহুডোরে। ...আজ রাত থেকে কোন স্ফুরিত অধর, কোন চিন্তা তোমায় নিয়…





অডেনের বিখ্যাত কবিতার লাইন দিয়ে শুরু হোক নারী পুরুষের মিলনের প্রতিপাদ্য।
প্রেম তোমার ঘুমন্ত মাথা রাখো আমার অবিশ্বস্ত বাহুতে। সময় উৎকণ্ঠা জ্বলে পুড়ে হয়ে যাক খাক বাহুডোরে। ...আজ রাত থেকে কোন স্ফুরিত অধর, কোন চিন্তা তোমায় নিয়ে, কোন চুম্বন, একটু চাহনি, হবে না হবে না বৃথা!

স্বামী-স্ত্রী দৈহিক মিলন  কালে দুটি আত্মা কিছুক্ষণের জন্য হলেও একপ্রাণ হয়ে যায়। স্বামী-স্ত্রী পরষ্পরের সবচেয়ে কাছে আসার আনন্দ ঘন মুহূর্ত হলো যৌনমিলন। সেই মুহূর্তে কোন অপ্রীতিকর বা অপ্রাসঙ্গিক কথা জীবনসাথীকে মানসিক কষ্ট দিতে পারে। নিচে সে রকম কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হলো যা মিলনকালে কিংবা মিলনশেষে কোন অবস্থায় ভুল করেও করা উচিত নয়।
মিলনের সময় অন্য কোন নারী বা পুরুষের প্রশংসা:
মিলন বা সম্ভোগের সময়  অন্য কোন নারী বা পুরুষের নাম আপনাদের উত্তেজনায় ঠাণ্ডা জল ঢেলে দিতে পারে।

স্বামী বা স্ত্রীর নামের ব্যবহার :-
আপনি মজা করে অন্য যে কোন সময় যে কোন নামে আপনার স্বামীকে ডাকতে পারেন কিন্তু দৈহিক মিলনকালে কখনো নয়!! নারীরা অতিমাত্রায় নামের ব্যপারে সংবেদনশীল তাদের ধারনা মিলনকালে অন্য মেয়ের নাম নেয়ার মানেই হলো আপনি শারীরিক অবগাহন করছেন তার কিন্তু মানসিক ধ্যানে অন্য কেউ। অন্যদিকে ছেলেদের আত্মসম্মান-অহমিকা বেশি। মিলনের সময় তার নাম ভুল ডাকা অনেক সময় তাকে মুড অফ্‌ করে দিতে পারে।
তোমার লিঙ্গ দেখতে এ রকম? অথবা তোমার যোনী অনেক কালো কিংবা তোমার স্তনের বোটা দেখতে ভাল লাগেনা এসব বলবেন না।
 পাগলকে রাস্তায় পাগল বলে নিজ স্থানে দাড়িয়ে থাকতে পারবেন? পাগলকে পাগল বলার আগে দৌড়ের প্রস্তুতি নিন।  সত্য  মিথ্যা যাই হোক সেটা শুনতে ভাল লাগে সেটাই বলুন। লিঙ্গ হল পুরুষের অহংকার। লিঙ্গ যে রকমই হোকনা কেন সব পুরুষ তার আপন লিঙ্গকে সম্পদ হিসেবে দেখে। তেমনি নারীর শরীরের প্রতিটি অংশ তার সৌন্দর্য্যের বহিঃপ্রকাশ। আপনি যার সাথে সুখের পথ পাড়ি দিচ্ছেন তার কোন সমস্যা কেন খুজবেন?

বাতিটি কি নিভেয়ে দিব:-

শাররীক মিলন করছেন। মিলনের মাঝা-মাঝি আছেন এমন সময় বললেন লাইট নিভিয়ে দেব? অর্থটা আপনার সঙ্গীর কাছে এমন দাঁড়াতে পারে আপনি তার শরীরের কোন বিশেষ অঙ্গ পছন্দ করছেন না। অনেকে বলতে পারেন লজ্জার কারনে বাতি নিভানোর কথা আসছে। যদি লজ্জাই থাকবে তাহলেতো শুরুর দিকে বিবস্ত্র করার সময়ও হতে পারতো।

 যৌনমিলনের সময় সাংসারিক আলোচনা একদম নয়:

 সাংঘাতিক মনোনিবেশকারী কার্যক্রম যৌন মিলন। যৌনিমলনের সময় সাংসারিক আলোচনা কিংবা অবাঞ্চিত বিষয় উত্থাপনের মানেই হলো আপনি মিলনে আনন্দ পাচ্ছেন না এবং আপনার সঙ্গীর সাথে বোরিং ফিল করছেন । বা কর্তব্য পালন করছেন।  এই রকম অনুভুতি আপনার সঙ্গীর মুড অফ হয়ে যেতে পারে।   মিলনে নিবিড় মনোনিবেশ করুন।

মিলনের সময় সময় নিয়ে ভাবনা নয়:

সময় নিয়ে কি এত্ত ভাবনা? যৌনমিলন করুন যেন কাল বলে কিছু নেই। অতি বেগে ধাবিত হবেন না। প্রতিটি মুহুর্তকে দুইজন মিলে উপভোগ করুন। শাররীক মিলনকে  অফিস টাইম বানিয়ে ফেলবেন না। আন্তরিক মিলনে যত বেশি সময় ব্যয় করবেন পরষ্পরের আন্তরিকতা তত বাড়বে ।

মিলনের সুন্দর সমাপ্তি চাই:
যার শেষ ভাল, তার সব ভালো।  যৌনমিলনকালে কিংবা মিলন শেষে হবার সাথে সাথে ঘুমিয়ে যাওয়া বেমানান।  জড়িয়ে আদর করা হচ্ছে মিলনের সবচেয়ে সুন্দর সমাপ্তি।

No comments