"মৃত দুই ছাত্রের অভিভাবকরা এখন বিজেপির মুখপাত্র "অভিযোগ শুভেন্দুর - Vice Daily

Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

"মৃত দুই ছাত্রের অভিভাবকরা এখন বিজেপির মুখপাত্র "অভিযোগ শুভেন্দুর

উত্তর দিনাজপুর ইসলামপুর : মৃত দুই ছাত্রের অভিভাবকরা আরএসএস এবং এভিবিপির হয়ে প্রচার চালাচ্ছে৷ । রবিবার বিকেলে ইসলামপুর ব্লকের পন্ডিতপোতা দুই গ্রাম পঞ্চায়েতের ধোলাই বস্তি ময়দানে ব্রিগেড কে সামনে রেখে তৃনমুলের জনসভা  আয়োজিত  এস…


উত্তর দিনাজপুর ইসলামপুর : মৃত দুই ছাত্রের অভিভাবকরা আরএসএস এবং এভিবিপির হয়ে প্রচার চালাচ্ছে৷ । রবিবার বিকেলে ইসলামপুর ব্লকের পন্ডিতপোতা দুই গ্রাম পঞ্চায়েতের ধোলাই বস্তি ময়দানে ব্রিগেড কে সামনে রেখে তৃনমুলের জনসভা  আয়োজিত  এসে এমনই বলেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের উত্তর দিনাজপুর জেলা পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। দাড়িভিটের মাটিকে প্রণাম জানিয়ে তিনি দারিভিট কাণ্ডের  নিয়ে বলেন, এই ধরনের মৃত্যু দুঃখজনক। কারো না কারোর গুলিতেই ওই দুই পড়ুয়ার মৃত্যু হয়েছে ও  সিআইডি তদন্ত চলছে।
মৃত দুই ছাত্রের
 পরিবারের সদস্যরা ভালো থাকুক আমার পক্ষে  সমবেদনা । মৃত দুই ছাত্রের অভিভাবক ও  পরিবারগুলি যে হত্যা নিয়ে ভাবিত নয় তা বিজেপির প্রেক্ষাপট দেখেই পরিষ্কার। আমরা ওই পরিবারকে কোনোভাবেই আক্রমণ করতে আসিনি এসেছি ব্রিগেডে সমাবেশের জন্য জনসভা করতে প্রস্তুতি নিতে। ইসলাপুর  দারিভিটে পুলিশ গুলি চালিয়েছিল সেই ছবি যদি কেউ দেখাতে পারেন তবে মুখ্যমন্ত্রীকে বলবো ব্যবস্থা নিতে।  নন্দীগ্রাম থেকে শুরু করে ইসলামপুরের দারিভিট পর্যন্ত আমাকে বিজেপির গুন্ডাবাহিনী কখনো আটকাতে পারেনি তা আজ প্রমাণ করে দিয়ে গেলাম।
 বন্ধুদের বলে যেতে চাই এই পন্ডিতপোতা দুই গ্রাম পঞ্চায়েতে আগামী লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস পাঁচ হাজার ভোটে এগিয়ে থাকবে। অন্যদিকে এদিন মন্ত্রি শুভেন্দু অধিকারী বলেন  কেন্দ্রীয় রাজনীতি নিয়ে  রথ যাত্রার প্রসঙ্গ তুলে  জানান, এই রথ, যার ভেতরে রয়েছে বাথরুম। সেখানে তারা আনন্দ ফূর্তি করবে। ফষ্টিনষ্টির পরিকল্পনা রয়েছে। তাই এই রথ নিয়ে হয়তো দাঙ্গা বেঁধে যেত রাজ্যে। তাই তাদের মুখ্যমন্ত্রী এই ধরনের দাঙ্গা বন্ধ করতে চেয়েছেন। এছাড়াও বিজেপিকে এক হাত নিয়ে তিনি বলেন, এই বিজেপির না আছে জুতা না আছে ছাতা। তাই এদের হারতে সময় লাগবে না।
কারণ নোট বন্দি, জিএসটি সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ফেল করে গেছেন মোদি সরকার। তাই আসুন ভারতে অবিজেপি সরকার গঠিত হোক। আর এটি হলে জিনিসপত্রের দাম আবার কমে যাবে।

No comments