Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Breaking News:

latest

About

অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত ১টি বাড়ি

কোচবিহার: দিনহাটায় অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত হলো একটি বাড়ি
। রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে দিনহাটা পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ড সংলগ্ন পুটিমারি ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের বড় নাচিনা এলাকায়। জানা গেছে, ওই এলাকার জলিল মিয়া নামে এক ব্যক্তির বাড…

কোচবিহার: দিনহাটায় অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত হলো একটি বাড়ি
। রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে দিনহাটা পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ড সংলগ্ন পুটিমারি ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের বড় নাচিনা এলাকায়। জানা গেছে, ওই এলাকার জলিল মিয়া নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে আজ সকালে আগুন লাগে। এদিকে আরো জানা গেছে এদিন সকালে বাড়ির লোক গ্যাসে ভাত রান্না করছিলেন। পরে ভাতের মাড় ফেলতে যান কলের পাড়ে । এসে দেখেন ঘরের মধ্যে থাকা পাট কাঠির মধ্যে আগুন লেগে যায়। এরপর এলাকার বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দমকল কে বারবার ফোন করা হলেও তাদের ফোনে পাওয়া যায়নি বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন। পরে স্থানীয় এলাকার এক বাসিন্দা নিজে মোটরসাইকেল নিয়ে দমকল কেন্দ্রে গিয়ে খবর দেন ।পরে দমকলের একটি ইঞ্জিন আসে কিন্তু যেই বাড়িতে আগুন লেগেছে সেই বাড়িতে পৌছে দমকলে প্রায় কিছুটা দেরি হয়ে যায়। কারণ ওই স্কুলে পাশে একটি গলি রয়েছে সেই গলির মুখে একটি অস্থায়ী ভাবে টিনের বাড়ি গড়ে উঠেছে ফলে কোন গাড়ি সেখানে ঢুকতে খানিকটা  সমস্যায় পড়ে। পরে কোনরকম এই দমকলের ইঞ্জিন ওই বাড়ির কাছে পৌঁছে দ্রুত আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। প্রায় আধ ঘণ্টার চেষ্টায় এই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে বলে জানা গেছে। অগ্নিকান্ডে ভষ্মীভূত হওয়া ওই বাড়ির মালিক জলিল মিয়া বলেন, সকালে বাড়ি র গ্যাসে ভাত রান্না করা হচ্ছিল। ভাত হয়ে গেলে তারপর কলের পাড়ে মার মেলতে যায়। এসে দেখে ঘরের ভিতরে মজুদ করে থাকা পাটকাঠি তে আগুন ধরে যায়। সেই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে গোটা আর ঘরে। পরে দমকল কে বারবার ফোন করা হলেও তারা আসতে দেরি করায় পরে এখান থেকে লোক গিয়ে তাদেরকে নিয়ে আসে। ঘরের বিছানায় থাকা ১০ হাজার টাকা সহ আধা বস্তা চাল ও আরো অনেক কিছুই ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে তিনি জানান। স্থানীয় বাসিন্দা মোবারক মিয়া বলেন, এই ক্ষয়ক্ষতি কিছুটা কমানো যেত যদি দমকল কর্মীরা আরো আগে এসে যদি আগুন নিভাতে পারত। তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন, দমকলের প্রথমে ১০১ নাম্বারে আমরা ফোন করি সেই ফোন কোচবিহারে যায় পরে কোচবিহার অফিস থেকে একটি নাম্বার দেওয়া হয় আমাদের কাছে সেই নাম্বারে ফোন করে তাদের সাথে কোনরকম যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।পরে এখান থেকে আমাদেরই একজন গিয়ে দমকল কে খবর দেয় । পরে দমকল ঘটনাস্থলে আসে কিন্তু গলির ঢোকার মুখে একটি বাড়ি থাকায় দমকল ঢুকতে কিছুটা সমস্যায় পড়ে প্রায় ১০ মিনিট লাগে ওই গলিতে ঢুকতে। এর জন্যই ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ টা একটু বেশি হয়েছে বলে তিনি।এদিকে এই অগ্নিকান্ডের ফলে ওই এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে বেশ আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

No comments