Top Ad 728x90

Saturday, 10 November 2018

, , ,

ভ্যাম্পায়ার অস্তিত্ব আছে?




সুফোকের হাভারহিলের ঘুমন্ত শহরটিতে আপনি যদি নিজের জীবনের ঝুঁকিতে প্রবেশ করতে পারেন, তাহ্বলে আপনি বাস্তব জীবনের ভ্যাম্পায়ারগুলির সাথে মুখোমুখি হতে পারেন। যদিও এই ভ্যাম্পায়ারগুলির সূর্যালোকে বেরোতে বা ক্রুশবিদ্ধ হতে কোনও আপত্তি নেই, তবুও তাদের মধ্যে একটি বৈশিষ্ট্য দৃশ্যমান : রক্তের তৃষ্ণা।
২০ বছর বয়সী তরুণী লিয়া বেনিংহফ, ডেটিং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ভ্যালেন্টাইন্স ডেতে 'ভ্যাম্পায়ার' এরো ড্রভেনের সাথে সাক্ষাৎ করেছিলেন।  লিয়া এরো এর ভ্যাম্পায়ার লাইফস্টাইলের দ্বারা উদ্দীপ্ত হয়ে নিজেও ভ্যাম্পায়ার হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে।
তিন সপ্তাহ ডেটিংয়ের পর ৩৮ বছর বয়সী এরো লিয়াকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়, যাতে লিয়া আনন্দের সাথে রাজী হন। কিন্তু তাদের ভালোবাসার প্রকৃত পরীক্ষা তখন এসেছিল, যখন প্রচুর বিবেচনার পর, লিয়া এরোকে বলে, ভ্যাম্পায়ারে পরিণত করার জন্য।
অ্যারো ব্যাখ্যা করে বলেন, প্রথম প্রথম মতো আমারও রক্তের জন্য খিদে ছিল, এমনকি কোন সময় কেউ তাদের আঙ্গুল কেটে ফেলবে আমি সেটা আমার মুখে ঢুকিয়ে নিতাম।'
তাদের ক্ষুধা সন্তুষ্ট করার জন্য, লিয়া এবং অ্যারো একসপ্তাহে একে অপরের রক্ত ​​পান করে, পাশাপাশি স্থানীয় কসাই থেকে কাঁচা স্ট্যাক খেতেন, এবং একটি ওয়াইন গ্লাসে ভর্তি শুয়োরের রক্ত খেতেন।

Share this post

0 comments:

Post a Comment

Top Ad 728x90