Top Ad 728x90

Thursday, 29 November 2018

, ,

প্রাক্তন কে এল ও জঙ্গীরা ফিরছে জীবনের মূল স্রোতে


ভাইস ডেইলি,সন্দীপ চ্যাটার্জি, আলিপুরদুয়ার,২৯ নভেম্বর:- রাজ‍্যের মূখ‍্যমন্ত্রী মমতা ব‍্যানার্জি উদ‍্যোগ প্রাক্তন কে এল ও জঙ্গীরা ফিরছে জীবনের মূল স্রোতে। পুলিশের কাজে যোগ দিল প্রাক্তন কে এল ও জঙ্গীরা। ১৯৯৩ সালে উত্তরবঙ্গের ছয় জেলা নিয়ে পৃথক কামতাপুর রাজ্যের দাবিতে কে,এল,ও আন্দোলনে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা উত্তরবঙ্গ। কেএলও চিফ জীবন সিংহ ওরফে তমির দাসের নেতৃত্বে মিল্টন বর্মা, মধুসূদন দাস জঙ্গি আন্দোলন শুরু করে। আলিপুরদুয়ারের কুমারগ্রাম থেকেই শুরু হয় কে,এল,ওর আন্দোলন।

অসমের জঙ্গি গোষ্ঠী উলফা দের থেকে ভুটানের দুর্গম পাহাড় এবং জঙ্গলে শুরু হয় জঙ্গি প্রশিক্ষণ। সেখানকার সামদ্রুপজংখার প্রশিক্ষণ শিবিরে আট মাসের কঠোর অনুশীলনের পর ওই প্রথম ব্যাচের ১৯ জন কেএলও জঙ্গী ত্রাস হয়ে উঠেছিলেন তৎকালিন বাম সরকারের। বদলে যায় পরিচিত নাম গুলিও। মিহির বদলে যান মিল্টনে আর মধুসুদনের নাম হয় টারজান। ওভাবেই সন্ত্রাসের চোরা গলিতে পা রাখে একদল তরুন তুর্কি। হাতে তুলে নেন একে সিরিজের স্বয়ংক্রিয় রাইফেল একে ৪৭ আর ৫৬। ২০০৩ সালে অপারেশন ফ্ল্যাস আউটের সময় ভুটান সেনা ও রাজ্য পুলীশের সাঁড়াশি আক্রমনের চাপে একে একে আত্মসমর্পন করেন প্রত্যেকেই। কিন্তু জীবন সিংহ সকলের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে যান মায়ানমারে। তার পর কেটে যায় দীর্ঘ ১৫ টি বছর ,কখনও জেলে, কখনও আদালতে হাজীরা দিতে দিতে। সম্প্রতি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর উদ্যোগে মেলে সরকারী চাকুরী। আজ ওদের গায়ে উঠেছে পুলিশের খাকি উর্দি।

আলিপুরদুয়ার পুলিশ সুপার সুনিল কুমার যাদব জানান যে, প্রথমে ১৯ জন প্রাক্তন কে এল ও ট্রেনিং নিয়েছে তাদের ট্রেনিং শেষে বিভিন্ন ট্রাফিক পয়েণ্টে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং তারা সাফল্য সহিত ট্রেনিং শেষ করেছে এবং খুব নিষ্ঠা সহিত কর্তপরায়ণ হয়ে তারা কাজ করছে। দ্বিতীয় ধাপে ২১ জন ট্রেনিং নেবে। প্রাক্তন কে এল ও কমাডেণ্ট মিল্টন সে পুলিশ ট্রেনিং নিয়ে এখন ফালাকাটা চৌপথিতে ট্রাফিক দায়িত্ব সামলাচ্ছে।

মিল্টন জানান, মূখ‍্যমন্ত্রীকে ধন‍্যবাদ কেননা আমাদের ছেলে গুলো জীবনের মূল স্রোতে ফিরে আসার পর হাবুডুবু খাচ্ছিল মূখ‍্যমন্ত্রী উদ‍্যোগে কাজ পেয়েছি এখন চলে যাচ্ছে ভালো আছি।

Share this post

0 σχόλια:

Post a Comment

Top Ad 728x90